তাজা খবর
সংকীর্ণতার উর্ধ্বে উঠে দলকে শক্তিশালী করার আহ্বান মেয়র নাছিরের

সংকীর্ণতার উর্ধ্বে উঠে দলকে শক্তিশালী করার আহ্বান মেয়র নাছিরের

সংকীর্ণতার উর্ধ্বে উঠে দলকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানিয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

শনিবার (১৭ আগস্ট) বিকেলে ইঞ্জিনিয়ারস ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে নগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় তিনি আহ্বান জানান।

সভায় নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন।

মেয়র নাছির আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু স্বপ্ন দেখাননি, তিনি একে একে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। গরীব নিম্ন আয়ের দেশ থেকে বাংলাদেশ আজ উন্নয়ন শীল দেশের কাতারে।

‘আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের আমলে বাংলাদেশে যে উন্নয়ন সাধিত হয়েছে বিগত কোন সরকারের আমলে তা হয়নি। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর বয়স প্রায় ৭৪ বছর। চলতি সরকারের এই মেয়াদ শেষে উনার বয়স হবে প্রায় ৭৮ বছর।’

তিনি আরও বলেন, ২০৪১ সালের রূপকল্পের বাংলাদেশ বাস্তবায়িত করতে হলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বের বিকল্প নেই। তার সুযোগ্য নেতৃত্বেই বাস্তবায়িত হবে রূপকল্পের বাংলাদেশ। মহান সৃষ্টিকর্তা পরম করুনাময়ের কাছে আকুল প্রার্থনা তিনি যেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ২০৪১ পর্যন্ত বাঁচিয়ে রাখেন।

নগর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য দেন নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, সিডিএ চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনান, হাসান মাহমুদ হাসনী, আইন সম্পাদক ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম চৌধুরী, কার্যনির্বাহী সদস্য সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, জাফর আলম চৌধুরী, আবদুল লতিফ টিপু, থানা আওয়ামী লীগ নেতা সিদ্দিক আলম, ফিরোজ আহমেদ, হারুনুর রশিদ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন, অধ্যাপক মো ইসমাইল, ছিদ্দিক আহমদ, সেলিম রেজা, নুরুল আমিন কালু, হাজী আবু তৈয়ব সিদ্দিকী, জহুর আহমদ প্রমুখ।

সভায় নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সাংসদ ডা আফছারুল আমিন, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, নগর আওয়ামী লীগ কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম, দপ্তর সম্পাদক শমসের হাসান মাহমুদ শমসের, সদস্য জোবাইরা নার্গিস খানসহ ওয়ার্ড, থানা, ইউনিট নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*