তাজা খবর
সীতাকুণ্ডে চালক হত্যা: আসামির আত্মসমর্পণের পর উঠলো ধর্মঘট

সীতাকুণ্ডে চালক হত্যা: আসামির আত্মসমর্পণের পর উঠলো ধর্মঘট

সীতাকুণ্ডের একটি গ্যারেজে প্রাইম মুভার ট্রাকের চালক শাহজাহান সাজুকে গুলি চালিয়ে হত্যা মামলার একমাত্র আসামি মো. মাসুম আদালতে আত্মসমর্পণ করেছেন।

হত্যাকাণ্ডের পাঁচদিন পর সোমবার তিনি চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়ার ম্যাজিস্ট্রেট জয়ন্তী রানী রায়ের আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

গ্যারেজটির ফোরম্যান মাসুমের আত্মসর্মপণের পর সকাল থেকে চলা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়েছে চট্টগ্রাম প্রাইম মুভার ও ট্রেইলার শ্রমিক ইউনিয়ন।

চট্টগ্রাম জেলা আদালতের ওসি (প্রসিকিউশন) সুব্রত ব্যানার্জি বলেন, মাসুম বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

“বিচারক জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।”

হত্যাকাণ্ডের পর পাঁচদিন ধরে খুঁজেও মাসুমকে পায়নি পুলিশ।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শামীম শেখ বলেন, “আসামি মো. মাসুম আদালতে আত্মসমর্পণ করেছে বলে জানতে পেরেছি।”

এর আগে সকাল ছয়টা থেকে মাসুমের গ্রেপ্তারের দাবিতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করে চট্টগ্রাম প্রাইম মুভার ও ট্রেইলার শ্রমিক ইউনিয়ন। এতে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে কন্টেইনার পরিবহন বন্ধ হয়ে যায়।

ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিকী বলেন, “আসামি ধরা পড়ায় বেলা দুইটায় ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে।

“পাশাপাশি আগামীকাল সকাল থেকে সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের পক্ষে চট্টগ্রামে যে সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছিল তাও প্রত্যাহার করা হয়েছে।”

বুধবার দুপুরে সীতাকুণ্ড উপজেলার টোল রোডে শুকতার রেস্টুরেন্টের বিপরীতে গ্যারেজ মেসার্স দিদারুল আলম ব্রাদার্সে গুলি করা হয় প্রাইম মুভার চালক শাহজাহান সাজুকে।

শাহজাহানের সহকর্মীদের অভিযোগ, গাড়ির ব্যাটারি আনতে গিয়ে গ্যারেজের ফোরম্যান মাসুমের সাথে তার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মাসুম তার পেটে গুলি করে।

ঘটনার পরপর সহকর্মীরা শাহজাহানকে প্রথমে বেসরকারি আল আমিন হাসপাতালে এবং পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।

ওইদিন বিকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান শাহজাহান।

এ ঘটনায় মাসুমকে আসামি করে সীতাকুণ্ড থানায় মামলা করেন নিহতের স্ত্রী শাহিদা আক্তার।

হত্যাকাণ্ডের পরদিন থেকে তিন শতাধিক প্রাইম মুভার ট্রাক ও ট্রেইলার চালানো বন্ধ রাখেন সেখানকার চালকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*