তাজা খবর
ভ্রাম্যমাণ আদালত দেখে ভোজন ফেলে পালালেন বরযাত্রীরা

ভ্রাম্যমাণ আদালত দেখে ভোজন ফেলে পালালেন বরযাত্রীরা

উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে বরযাত্রীদের ভোজন। অতিথিতে ঠাসা বিয়ে বাড়ি। একটু পরে আসবেন বর। সবাই বর আসার অপেক্ষায় মেতেছেন আনন্দে। এমন সময় বরের পরিবর্তে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এহসান মুরাদের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ভ্রাম্যমাণ আদলতের উপস্থিতি টের পেয়ে ভোজনের মাঝপথে পালালেন বরযাত্রীরা। পণ্ড হয়ে গেল বাল্য বিবাহ।

৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে এমন ঘটনা ঘটেছে রাউজান উপজেলার গহিরা ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের দলই নগর গ্রামের তফজ্জল সওদাগরের বাড়িতে।

জানা যায়, উপজেলার দলই নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে পাশ্ববর্তী ফটিকছড়ি উপজেলার ধর্মপুর গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেনের পুত্র মোহাম্মদ এমদাদুল ইসলামের বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন চলছিল।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মেয়ের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়ার সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় বিয়ে ভেঙ্গে দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বাল্য বিবাহের আয়োজনের জন্য কনের বাবাকে বাল্য বিবাহ নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৭ (৮) ধারায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

কনের পরিবারসহ উপস্থিত জনসাধারণের সামনে বাল্য বিবাহের কুফল তুলে ধরেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সিনিয়র সহকারী কমিশনার (ভূমি) এহসান মুরাদ।

উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের পেশকার উজ্জ্বল বড়ুয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*