তাজা খবর
চট্টগ্রামে বিশ্বমানের সুইমিং পুলের উদ্বোধন আজ

চট্টগ্রামে বিশ্বমানের সুইমিং পুলের উদ্বোধন আজ

নিউজ ডেস্ক:

১১ কোটি ৬১ লাখ টাকা ব্যয়ে চট্টগ্রামে আন্তর্জাতিক মানের সুইমিং পুল আজ উদ্বোধন হচ্ছে। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অর্থায়নে চট্টগ্রাম আউটার স্টেডিয়ামে প্রায় দুই বিঘা জায়গার উপর নির্মিত সুইমিং কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করবেন প্রধান অতিথি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল। বিশেষ অতিথি থাকবেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন। সভাপতিত্ব করবেন সিজেকেএস এর সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন।

এ সুইমিং কমপ্লেক্সে রয়েছে ৫০ মিটার দৈর্ঘ্য, ২২ মিটার প্রস্থ এবং ১.৮ মিটার গভীর ৮ লাইনের একটি সুইমিং পুল। সেইসাথে ড্রেসিং রুম, প্লেয়ার লাউঞ্জ, দুইপাশে গ্যালারীতে দেড় হাজার দর্শকের বসার ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ সাবস্টেশন, পিউরিফিকেশন প্ল্যান্ট, ডিপ টিউবওয়েল, গাড়ি পার্কিং এবং অফিসও। ২০১৭ সালের ফেব্রয়ারিতে এ সুইমিং কমপ্লেক্সের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছিল।

এ সুইমিং পুলটিতে শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে যেকোনো বয়সী মানুষ সাঁতার শিখতে পারবে। সাঁতার শেখানোর জন্য ২ জন নারী প্রশিক্ষক, ২ জন পুরুষ প্রশিক্ষকসহ ১৯ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ দেয়া হয়েছে। যারা সাঁতার জানে না তাদের জন্য বিভিন্ন কোর্স ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। নারী ও পুরুষদের সাঁতার শেখার জন্য আলাদা সময় নির্ধারণ করে একটি ফরমেট তৈরি করেছে সিজেকেএস। শিক্ষানবিশ (সাঁতার না জানা) ক্যাটাগরিতে ছেলে-মেয়েদের প্রতি মাসের কোর্স ফি ৩ হাজার টাকা। বিভিন্ন ইভেন্টের জাতীয় দল ও চট্টগ্রাম জেলা দলের সাঁতারুরা সপ্তাহে ৪ দিন দৈনিক ১ ঘণ্টা সাঁতার কাটতে পারবেন। তাদের জন্য রাখা হয়েছে জনপ্রতি ২০০ টাকা। সাঁতার জানা শৌখিন সাঁতারুদের জন্য রাখা হয়েছে প্রতি ঘণ্টা ৪০০ টাকা। এছাড়া আরও বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ফি নির্ধারণ করা আছে। এর আয় দিয়ে প্রতিষ্ঠানের ব্যয় নির্বাহ করা হবে। যেখানে জীবনের জন্য সাঁতার, বাঁচার জন্য সাঁতার শেখা অপরিহার্য হয়ে উঠেছে সেখানে এ প্রশিক্ষণ ফি অত্যধিক বলে মনে করছেন অনেকেই। তাই এ ফি আরও কিছু কম রাখলে তাহলে গরীব ও মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তানরা সাঁতার শেখার সুযোগ পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*