তাজা খবর
প্রেমের প্রলোভনে নোয়াখালী থেকে চট্টগ্রাম এসে যুবক খুন

প্রেমের প্রলোভনে নোয়াখালী থেকে চট্টগ্রাম এসে যুবক খুন

চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কোলাঁগাও ইউনিয়নের চাপড়া শীলপাড়া এলাকায় পোশাক কারখানার শ্রমিক কামরুল হাসান পলাশ (২৬) খুনের ঘটনায় পটিয়া থানায় মামলা করেছেন নিহতের পিতা জহিরুল হক।

সোমবার রাতে তিনি নোয়াখালী থেকে পটিয়া থানায় এসে ছেলে হত্যার বিচার চেয়ে অজ্ঞাতনামা ১৫-২০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। এর আগে নিহত পলাশের কথিত প্রেমিকাকে গত রোববার রাতে আটক করে পটিয়া থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে কথিত প্রেমিকা জানান, নিহত পলাশের সাথে তার এক বছরের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। তাদের মধ্যে সম্পর্কে ক্ষিপ্ত হয়ে তার স্বজনরা গত শুক্রবার রাতে তার নিজের মোবাইল থেকে ফোন দিয়ে কৌশলে ডেকে আনেন পলাশকে। কথামতো পলাশ সাড়া দিয়ে তরুণীর বাড়িতে আসেন। রাত দশটার দিকে পলাশকে ঘরে আটকে রেখে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়। এসময় ওই তরুণী কান্নাকাটি করতে থাকেন। একপর্যায়ে পলাশের ওপর নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় তরুণীর তার স্বজনদের বলতে থাকেন পলাশের সাথে আর কোন সম্পর্ক রাখবে না। তাকে ছেড়ে দেয়ার জন্য মিনতি করার এক পর্যায়ে রাত সাড়ে ১২টার দিকে পলাশকে নিয়ে তার স্বজনরা এগিয়ে দেয়ার নাম করে প্রধান সড়কে এনে কুপিয়ে হত্যা করে রাস্তায় লাশ ফেলে রেখে কৌশলে পালিয়ে যায়। সকালে স্থানীয় লোকজন লাশটি দেখতে পেয়ে পটিয়া থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন জানান, পলাশ খুনের ঘটনায় তার বাবা বাদি হয়ে মামলা করেছেন। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের আইনের আওতায় এনে গ্রেফতার করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

নিহত পলাশের বাড়ি নোয়াখালী সদর উপজেলার আবদুল্লাপুর মিয়া বাড়ির নলপুর গ্রামের জহিরুল হকের ছেলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*