তাজা খবর
ইরানের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য প্রতিশোধ নিতে সৌদির পথে পম্পেও
US Secretary of State Mike Pompeo boards a flight before departing from Andrews Air Force Base in Maryland on September 17, 2019. - Pompeo is heading to Saudi Arabia and the United Arab Emirates. (Photo by MANDEL NGAN / POOL / AFP)

ইরানের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য প্রতিশোধ নিতে সৌদির পথে পম্পেও

তেল স্থাপনায় হামলার পর সম্ভাব্য জবাব নিয়ে আলোচনায় বসতে মঙ্গলবার সৌদি আরবে রওনা দিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাইক পম্পেও।

এর আগে ওয়াশিংটন বলেছে, সৌদি তেল স্থাপনায় হামলা ইরান থেকে হয়েছে বলে তাদের কাছে প্রমাণ আছে।

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ঘোষণা করেন যে আমাদের জবাব কী হবে তা নিয়ে আলোচনা করতে পম্পেও সৌদি আরবের পথে রয়েছেন।

ওয়াশিংটনে দেয়া এক বক্তৃতায় তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট যেমনটি বলেছিলেন, আমরা কারও সঙ্গে কোনো যুদ্ধে জড়াতে চাই না। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বক্তব্য প্রতিধ্বনিত করে পেন্স বলেন, আমাদের অস্ত্র প্রস্তুত। মধ্যপ্রাচ্যে আমাদের ও মিত্রদের স্বার্থ সুরক্ষায় আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন কর্মকর্তা বলেন, ট্রাম্প প্রশাসন সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে গত সপ্তাহের হামলা ইরান থেকে হয়েছে এবং এটা ছিল ক্রুজ মিসাইল। আগামী সপ্তাহে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে এ সংশ্লিষ্ট প্রমাণাদি হাজির করা হবে।

ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি ওয়াশিংটনের সঙ্গে যে কোনো স্তরের আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে দেয়ার পর দেশটির বিরুদ্ধে মার্কিন অবস্থান আরো কঠোরতর হয়েছে।

কাজেই জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে নাটকীয় বৈঠকের আশা ধুলায় মিশে গেছে বলেই ধরে নেয়া যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*