তাজা খবর
আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে ‘রাজনীতি’ হচ্ছে: মেয়র নাছির

আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে ‘রাজনীতি’ হচ্ছে: মেয়র নাছির

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা নিয়ে দেশে ‘রাজনীতি’ হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

শনিবার দুপুরে নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত নগরবাসীর সাথে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। নগরীর ৩৮, ৩৯, ৪০ ও ৪১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

মেয়র আ জ ম নাছির বলেন, আমাদের দেশে অপরাধ করে অপরাধীরা পার পেয়ে যেতো একসময়। সে কারণে আইনের প্রতি, সরকারের প্রতি মানুষের একটা অসম্মান তৈরী হতো। কিন্তু এখন দেখুন আবরার হত্যাকাণ্ডের পর সাথে সাথেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

তিনি বলেন, হত্যাকাণ্ডে জড়িত কাউকেই বাদ দেয়া হয়নি। এদের বিরুদ্ধে তদন্তসাপেক্ষে চার্জশিট হবে। এজন্য হয়তো একটু সময় লাগবে। কারণ যেনতেনভাবে তো আর চার্জশিট দেয়া যাবে না। প্রধানমন্ত্রী, আইনমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েই বিষয়টি দেখছেন। কিন্তু তারপরও এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে।

মেয়র আরও বলেন, এটা অত্যন্ত দুঃখজনক যে আবরার ফাহাদকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু এটা যারা করেছেন তাদের প্রতি কি দলের কোন নির্দেশনা ছিলো? এটা তারা অতিউৎসাহী হয়ে করেছেন। এখন উপরন্তু এটা আমাদের খুঁজে বের করতে হবে তাদেরকে দিয়ে কেউ এই কাজটা করিয়েছে কিনা। আমেরিকা ইউরোপের মতো দেশগুলোতেও কিন্তু হত্যাকাণ্ড হচ্ছে। পার্সেন্টেজ যদি হিসাব করেন, আমাদের দেশের তুলনায় ঐসব দেশে অপরাধের মাত্রা আরও বেশি। এগুলো প্রমাণিত সত্য। শুধু মুখের কথা নয়।

নগরবাসীর প্রতি মেয়র বলেন, নাগরিক সমস্যা থাকবে। কিন্তু তার জন্য সমাধানও আছে। আর সমাধানের জন্য সেবাসংস্থাগুলোকে পরস্পরের প্রতিপক্ষ না ভেবে একে অপরের সহায়ক শক্তি ভেবে কাজ করলে সমাধান দ্রুত লাঘব হবে। আর এই লক্ষ্যে ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও ওয়াসা সমন্বিতভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

সভায় চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজনসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*