তাজা খবর
শাহ আমানত বিমানবন্দরে কাস্টমসের অটোমেশন চালু

শাহ আমানত বিমানবন্দরে কাস্টমসের অটোমেশন চালু

শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সফটওয়্যারের আওতায় অটোমেশন সিস্টেম ও এক্সিট নোট চালু করা হয়েছে।

রোববার (২৭ অক্টোবর) চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের কমিশনার মো. ফখরুল আলম এ সিস্টেমের উদ্বোধন করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কাস্টম হাউসের অতিরিক্ত কমিশনার কাজী মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, যুগ্ম কমিশনার মো. মাহবুব হাসান, উপ কমিশনার মো. রিয়াদুল ইসলাম, শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের সহকারী পরিচালক তানভীর আহমেদ, সোনালী ব্যাংক বিমানবন্দর শাখার ব্যবস্থাপক মো. তৌহিদুল গণি চৌধুরী, শাহ আমানতের কার্গো তত্ত্বাবধায়ক কাজী খায়রুল কবির, চট্টগ্রাম কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক কাজী মাহমুদ ইমাম বিলু প্রমুখ।

কাস্টম কমিশনার বলেন, অটোমেশনের ফলে এ বিমানবন্দর দিয়ে মধ্যপ্রাচ্য, ভারতসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গন্তব্য থেকে আসা যাত্রীদের ব্যাগেজের শুল্ককরাদি প্রযোজ্য হলে এয়ারফ্রেইট ইউনিটের সোনালী ব্যাংক শাখায় পরিশোধ করা যাবে। আগে তীব্র যানজট পেরিয়ে অনেক দূরে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস সংলগ্ন সোনালী ব্যাংকে এসব পরিশোধ করতে হতো। পণ্যচালান খালাসের ক্ষেত্রে এখানে ডেলিভারি পর্যায়ে অনেক রেজিস্ট্রার সংরক্ষণ করা হতো। এর ফলে চালান খালাসে দেরি হতো এবং জাল-জালিয়াতির সুযোগ ছিল। সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অংশ হিসেবে বিমানবন্দরটিতে অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে এয়ারফ্রেইট ইউনিটের অফিস কোড ৩০৪ এর মাধ্যমে এক্সিট নোট বা অটোমেশন সিস্টেম চালু হলো। এতে ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন নিশ্চিত করার পাশাপাশি রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধি করবে এবং বিদেশফেরত যাত্রীদের পণ্যসামগ্রী পাওয়ার ক্ষেত্রে ভোগান্তি লাঘব হবে। কমবে বিমানবন্দরের পণ্যজটও।

কাজী মাহমুদ ইমাম বিলু বলেন, এক্সিট নোট চালুর ফলে কার্গো পণ্য ডেলিভারি পয়েন্টে যে কর্মকর্তা থাকবেন তিনি অনলাইনে চেক করতে পারবেন শুল্ককরাদি পরিশোধ করা হয়েছে কিনা। আগে ম্যানুয়ালি করা হতো বলে জালিয়াতি ও রাজস্ব ফাঁকির আশঙ্কা ছিল। এ ছাড়া শুল্ককরাদি জমা দিতে বিমানবন্দর থেকে আর কাস্টম হাউসে আসতে হবে না। বিমানবন্দরে সোনালী ব্যাংকের শাখায় কাজটা সহজেই সম্পন্ন হবে এখন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*