তাজা খবর
টুইটারে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ

টুইটারে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ

খুদে ব্লগ হিসেবে খ্যাত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে সব ধরনের রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধ হচ্ছে। ২২ নভেম্বর থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে জানিয়ে প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, রাজনৈতিক বার্তা জনগণের কাছে এত দ্রুত পৌঁছানোর সুযোগ টাকার বিনিময়ে কিনতে পারা উচিৎ নয়, তা অর্জন করে নেয়া উচিৎ।

টুইটার বুধবার জানিয়েছে, তারা বিশ্বব্যাপী তাদের প্লাটফর্মে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাজনীতিবিদদের ভুল তথ্য দেয়া বিষয়ে ক্রমবর্ধমান সমালোচনার মুখে তারা এ পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে। খবর এএফপি’র।

টুইটারে দেয়া এক বার্তায় প্রধান নির্বাহী জ্যাক ডরসি বলেন, যাচাই না করা বিভ্রান্তিকর তথ্য এবং একেবারে ভুয়া খবর পরিবেশনের কারণে সৃষ্ট ক্রমবর্ধমান সমস্যার ব্যাপারে কোম্পানিটি মেশিন লানিং বার্তা সংশোধনে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

ডরসি আরো বলেন, টুইটারের নতুন নীতিমালায় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করা প্রার্থীদের পাশাপাশি রাজনৈতিক বিভিন্ন বিষয়ের বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করা হবে। এ নীতিমালার বিস্তারিত ১৫ নভেম্বর প্রকাশ করা হবে। তিনি বলেন, আমরা কেবলমাত্র প্রার্থীর বিভিন্ন বিজ্ঞাপন বন্ধের বিষয় বিবেচনায় রেখেছি। সূত্র: বাসস

টুইটারের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফেসবুক সম্প্রতি রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বন্ধ না করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। কোনো প্রতিষ্ঠানের রাজনৈতিক বা গণতান্ত্রিক সংবাদকে সেন্সর করা সঠিক সিদ্ধান্ত নয় বলে মনে করেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। তিনি মনে করেন, গণতন্ত্রের জন্যই বেসরকারি সংস্থাগুলোর রাজনৈতিক সংবাদের সেন্সর করা ঠিক নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*