তাজা খবর
প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব জয়নুল আবেদিনের প্রথম জানাজা সম্পন্ন

প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব জয়নুল আবেদিনের প্রথম জানাজা সম্পন্ন

প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদিনের প্রথম জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। আজ সকাল ১০ সেনানিবাস কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন মন্ত্রী পরিষদের সদস্য , আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সিনিয়র নেতারা।

এর আগে গতকাল বুধবার তার মরদেহ দেশে আনা হয়।

জানাজায় উপস্থিত ছিলেন সেনাপ্রধান, বিমান বাহিনীর প্রধান, পুলিশ প্রধান সহ সামরিক ও বেসামরিক বিভিন্ন পর্যায়ের উর্ধতন কর্মকর্তারা। জানাজা শেষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার এর পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদিনের জীবন বৃত্তান্ত পড়ে শোনানো হয়।

পরিবারের পক্ষ থেকে নিকটাত্মীয় কমোডর আফজাল মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে সকলের কাছে দোয়া চান। জানাজা শেষে মরহুমের মরদেহ চট্টগ্রামের লোহাগড়ায় নেয়া হচ্ছে এবং সেখানে পারিবারিক কবরস্থানে সামরিক মর্যাদায় দাফন করা হবে।

মঙ্গলবার বিকাল ৫টা ১৩ মিনিটে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন বীর বিক্রম। বুধবার বিকালে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে তার মরদেহ দেশে আনা হয়। তার মৃত্যুতে শোক জানান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

বাদ আছর লোহাগাড়ায় দ্বিতীয় জানাজাঃ

লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি জানায়, চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার কৃতি সন্তান, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন বীরবিক্রম, বিবি, ওএসপি, পিএসসির মরদেহ গতকাল বুধবার দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। দেশে প্রথম নামাজে জানাজা আজ বৃহষ্পতিবার সকাল ১০টায় রাজধানীর ঢাকা সেনানিবাস কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়েছে। একইদিন বাদে আছর তার জন্মস্থান চুনতীতে ঐতিহাসিক সীরাত ময়দানে সর্বশেষ জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মরহুমের বড় ভাই ও চুনতী হাকিমিয়া মাদ্রাসার সভাপতি ইসমাঈল মানিক।

জানা গেছে, রাজধানীতে জানাজা শেষে সেনাবাহিনীর বিশেষ হেলিকপ্টার যোগে তার মরদেহ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতীতে নিয়ে আসা হবে। ইতিমধ্যে সেনাবাহিনীর একটি টিম এসে চুনতী শাহ সাহেব গেটসংলগ্ন মাঠে হ্যালি প্যাড তৈরি করেছে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিবের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ অব্যাহত রয়েছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, সামাজিক সংগঠন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাড়াও এলাকার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সংবাদপত্রে বিবৃতি দিয়েছেন। তারা হলেন, চট্টগ্রাম-১৫ আসনের সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মোহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও এমপিপত্মী রিজিয়া রেজা চৌধুরী, সাতকানিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোতালেব, লোহাগাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল, ভাইসচেয়ারম্যান এম ইব্রাহিম কবির, লোহাগাড়া সমিতি-চট্টগ্রামের সভাপতি আলহাজ্ব শফিক উদ্দিন, সেক্রেটারি নাজমুল মোস্তফা আমিন, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন কেন্দ্রীয় এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি এস এম লুৎফর রহমান, হাব চট্টগ্রাম জোনের সেক্রেটারি মাহমুদুল হক পেয়ারু, চুনতী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক কাজী আরিফুল ইসলাম, সাবেক চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী নূর মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ, চুনতীর শাহ সাহেব কেবলার দৌহিত্র মাওলানা আব্দুল মালেক ইবনে দিনার নাজাত, লোহাগাড়া ব্রিক ফিল্ড মালিক সমিতির সভাপতি সাহাব উদ্দিন চৌধুরী, লোহাগাড়া দোকান মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলাম সিকদার, এফডিইবি চট্টগ্রাম জেলা সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার জয়নুল আবেদীন, ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক নূর মোহাম্মদ ইয়াছিন কবির, মতি টাওয়ার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সাহাবুদ্দিন প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*