তাজা খবর
যে খাবারগুলো ভুলে যাওয়ার প্রবণতা বাড়িয়ে দেয়

যে খাবারগুলো ভুলে যাওয়ার প্রবণতা বাড়িয়ে দেয়

স্মৃতিশক্তি একজন মানুষকে সচল রাখার জন্য খুবই জরুরি। তবে মনে রাখার খমতা সবার ক্ষেত্রে এক হয় না। কারো স্মৃতিশক্তি অনেক বেশি শক্তিশালী হয়ে থাকে, আবার কারো কম থাকে।

আবার দেখা যায় অনেকের মনে রাখার ক্ষমতা বা স্মৃতিশক্তি ধীরে ধীরে কমে আসছে। এই বিষয়টি আসলেই বেশ চিন্তার। আমাদের মস্তিষ্কের রহস্যের সমাধান আজ পর্যন্ত বের করা যায়নি। মস্তিষ্ক নিয়ে যত গবেষণা হয়েছে, ততই অবাক করে দিয়েছে এর মধ্যে জড়িয়ে থাকা রহস্য।

তবে ইদানিং আমরা সবাই নানা প্যাকেটজাত খাবারের প্রতি বেশি নির্ভর হয়ে পড়ছি। আর আমাদের এই আধুনিক জীবনযাপন মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতাকে দুর্বল করে দিচ্ছে। যেকোনো বয়সের মানুষই এখন ভুলে যাওয়া বা স্মৃতিভ্রমের অসুখে ভুগছেন।

মনে রাখার ক্ষমতাকে অনেকটা কমিয়ে দেয়ার পেছনে আমাদের খাদ্যাভ্যাস অনেকটাই দায়ী। সেজন্য অবশ্যই সাবধান হওয়া প্রয়োজন। চলুন জেনে নেয়া যাক কোন খাবারগুলো আমাদের মনে রাখার ক্ষমতাকে কমিয়ে দিতে পারে-

কৃত্রিম মিষ্টিজাত খাবার
নিজের ডায়েটে কৃত্রিম মিষ্টিজাত খাবার রাখলে মাথা যন্ত্রণা, অবসাদ, ওজন কমে যাওয়া, মাথা ঘোরা ও স্মৃতিভ্রমের সমস্যায় ভুগতে পারেন।

প্রসেসড চিজ
চিজে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম ও প্রোটিন থাকে। প্রসেসড চিজ যেমন আমেরিকান চিজ ও মোজারেলাতে স্যাচুরেটেড ফ্যাট অনেক বেশি থাকে। ফলে তা মস্তিষ্কের ক্ষমতা কমিয়ে দেয়।

প্রসেসড মাংস
বাজারের প্যাকেটবন্দি প্রক্রিয়াকরণ করা মাংস খেলে মস্তিষ্ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে থাকা ট্রান্স ফ্যাট মনে রাখার ক্ষমতা কমিয়ে দেয়।

পনির
পনির মাঝেমাঝে খাওয়া ভালো। তবে বেশি খেলে এই উচ্চ প্রোটিনজাত খাবার ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রমে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করে।

সাদা খাবার
সাদা পাউরুটি, চিনি, পাস্তা ইত্যাদিতে প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট থাকে। এগুলো রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে তোলে। রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়লে আলঝাইমারের মতো রোগ মস্তিষ্কে বাসা বাঁধে।

বিয়ার
যেসব ব্যক্তি বিয়ার পান করে থাকে, তাদের মনে রাখার ক্ষমতা ক্ষীণ হয়। প্রায় ২০ বছর ধরে টানা মদ্যপানের অভ্যাস থাকলে শেষ বয়সে এসে স্মৃতি দুর্বলতা তৈরি হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*