তাজা খবর
কেমন মুখের গড়নে মানায় কোন ধরনের গয়না?

কেমন মুখের গড়নে মানায় কোন ধরনের গয়না?

আপনি হয়তো জেনে অবাক হবেন যে আপনার মুখের গড়নের সাথে গয়নার নকশার একটা নিবিড় সম্পর্ক আছে।আপনার মুখের গড়নের সাথে মানানসই গয়না আপনার সাজে আনবে পরিপূর্ণতা।

সাধারণত এই ছয় ধরণের মুখের গড়নকেই সবক্ষেত্রে প্রাধান্য দেয়া হয়-

● ডিম্বাকৃতি
● গোলাকৃতি
● স্কয়ার
● আয়তাকার
● হার্ট শেইপ
● ত্রিভুজাকার

আমাদের জেনে নেওয়া প্রয়োজন কেমন মুখের গড়নে কেমন নকশার গয়না পরা উচিত।

ডিম্বাকৃতি

গয়না বাছাইয়ের ক্ষেত্রে এই গড়নের অধিকারীদের ঝামেলা কম কারণ প্রয় সব ধরনের ডিজাইন খুব সহজেই মানিয়ে যায়। তবে যেহেতু ডিম্বাকৃতির মুখের গড়ন এমনিতেই একটু লম্বাটে তাই কানের দুল ও গলার মালা একটু খাটো দৈর্ঘ্যের হলেই ভালো লাগবে। হালকা জড়ানো মুক্তার মালা বেশ ভালো মানিয়ে যাবে এই ধরণের চেহারায়।

গোলাকৃতি

একটু লম্বা ধরনের কানের দুল পরার জন্য উপযুক্ত গোলাকৃতি চেহারা। দুলের নিচে একটা ড্রপ থাকলে বেশ ভালো লাগবে। একটু লম্বা বা ভি শেইপের নেকপিস গোলাকৃতি চেহারায় খুব মানানসই।

স্কয়ার

সাধারণত এদের চোয়াল একটু শক্ত গড়নের হয়, তাই মুখের কাঠিন্য দূর করতে এমন কানের দুল পরা উচিত যাতে মুখের গঠন একটু লম্বা মনে হয়। এজন্য মোটামুটি লম্বা কানের দুল বেশ সাহায্যকারী। ছোট টপ জাতীয় দুল ভালো লাগবে না।

গলার মালার ক্ষেত্রেও সফট ব্যাপারটি মাথায় রাখা উচিত। একটু ঢেউ খেলানো ডিজাইনের গয়না পরতে পারলে ভালো। ইউ শেইপের মালা বেশি ভালো লাগবে এরকম মুখের গড়নে।

আয়তাকার

আয়তাকার মুখ একটু লম্বাটে কিন্তু পাশে চাপা। তাই এমন দুল বাছাই করা উচিত যাতে মুখের চাপা ভাবটা কমে যায়।একটু চওড়া ও ভারী ধরনের দুল আয়তাকার মুখে ভালো লাগবে। মানে একটু বেশি নকশা করা জমকালো দুল অনায়াসে পরতে পারেন আয়তাকার মুখের অধিকারীরা। নেকপিসের ক্ষেত্রে চোকার, কলার বা প্রিন্সেস জাতীয় গয়না ভালো লাগবে কারণ মুখের আয়তাকার গড়নের জন্য এমনিতেই গলা বেশ লম্বা লাগে। এছাড়াও ভারী লকেট ছাড়া গোল মালাও বেশ মানানসই হবে।

হার্ট শেইপ

এই ধরনের মুখের চিবুকের দিকটা সরু হয় তাই কানের দুল বাছাইয়ের ক্ষেত্রে একটু লম্বা এবং নিচের দিকে ভারী ও ছড়ানো ডিজাইনের দুল পছন্দ করা উচিত। সরু লম্বা দুল বা ছোট টপ বাদ দেয়াই ভালো। চিবুকের দিকটা একটু লম্বা হওয়ার জন্য এই লম্বা ভাব টা কমাতে চোকার, কলার বা প্রিন্সেস নেকপিস ভালো হবে। তিন লেয়ারের বা বড় পাথরের কম লম্বা মালা ভালো লাগবে। এছাড়াও কম দৈর্ঘ্যের মালার সাথে ভারী লকেট বেশ মানিয়ে যাবে।

আরও পড়ুন- শখের গয়নার যত্ন ঠিকভাবে নিচ্ছেন তো?

ত্রিভুজাকার

এই ধরনের মুখের গালের দিকটা একটু ভারি থাকে। ছোট দুল বা টপ জাতীয় দুল ভালো লাগবে এই গড়নের জন্য। একটু কম দৈর্ঘ্যের এবং ভি শেইপের নেকপিস ভালো লাগবে। প্রিন্সেস এবং ম্যাটিনি গলার মালা ত্রিভুজাকার মুখের জন্য উপযুক্ত।

প্রতিটি মুখের গড়নই সুন্দর। তবে চেহারার আকারের সঙ্গে মানিয়ে গয়না পরলে তার সৌন্দর্য বেড়ে যায় বহুগুণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*