তাজা খবর
সহজে তৈরি করুন ওয়েবপেজ

সহজে তৈরি করুন ওয়েবপেজ

ফেসবুক, টুইটার, গুগল প্লাসসহ নানান সাইটে যেমন অ্যাকাউন্ট রয়েছে, নিজের আলাদা একটি সাইট তৈরির সুপ্ত ইচ্ছাও রয়েছে অনেকের। তবে প্রফেশনালদের দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে করতে এবং কাস্টম ডোমেইন ব্যবহার করতে যে খরচ, তা কুলিয়ে ওঠা সম্ভব নয়।

এ ক্ষেত্রে আপনার সুপ্ত ইচ্ছা পূরণ করতে পারে কিছু ওয়েবসাইট, যেগুলোতে বিনামূল্যে আপনার একটি ওয়েবপেজ তৈরি করতে পারবেন, পারবেন নিজে নিজেই তাকে কাস্টমাইজ করে মনমতো সাজিয়ে নিতে। এরকম কয়েকটি সাইটের কথা জানানো হলো এ লেখায়।

অ্যাবাউট ডটমি

খুব দ্রুত সাইন-আপ করে এই সাইট থেকে আপনি আপনার নিজের জন্য একটি ওয়েবপেজ খুলে ফেলতে পারবেন। এখান থেকে যে ওয়েবপেজটি খোলা হবে, তাতে আপনা রসংক্ষিপ্ত জীবনবৃতান্ত যেমন যুক্ত করতে পারবেন, তেমনি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের সাইটে আপনার অ্যাকাউন্টের লিংকও সংযুক্ত করতে পারবেন। এই ওয়েব পেজের ব্যাকগ্রাউন্ড আপনি পছন্দমতো বদলে নিতে পারবেন এবং প্রয়োজনে নতুন ছবি আপলোডও করতে পারবেন। কালার প্রোফাইলও বদলে দিতে পারবেন ইচ্ছে মতো। এখানে ওয়েব পেজটি তৈরি করা যায় খুব অল্প সময়ের মধ্যেই আর সাথে সাথেই তা উন্মুক্ত হয়ে যায় সকলের জন্য। এই ওয়েব পেজটি থেকে যেকেউ আপনাকে ইমেইল করতে পারবে এবং মন্তব্যও করতে পারবে। এই সাইটেও আবার লগিং এবং অন্যান্য পরিসংখ্যান সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করা হয়। ঠিকানা :about.me

ফ্লেভারস ডটমি

আগের সাইটে অনেক ফিচারই রয়েছে এই সাইটে। তবে এর বাড়তি কিছু ফিচারও রয়েছে। এখানে তৈরি করা ওয়েব পেজের হোমপেজের লেআউট যেমন পরিবর্তন করা যায়, তেমনি কন্টেন্টগুলো পছন্দমতো সাজানো যায়। আবার কন্টেন্টে ভিজ্যুয়াল ইফেক্টও যোগ করা যায়। বিনামূল্যের এই সাইটে পাঁচটি পর্যন্ত সামাজিক যোগাযোগের সাইটের অ্যাকাউন্ট যুক্ত করা যায়। অবশ্য বিনামূল্যের পাশাপাশি এখানে প্রিমিয়াম সার্ভিসও রয়েছে। যাতে অর্থের বিনিময়ে বাড়তি অনেক ফিচার ব্যবহার করা যাবে। ঠিকানা :flavors.me

ফলআর ডটকম

আগের দুইটি সাইটের চেয়ে এই সাইটের ব্যবহার একটু ভিন্ন। এই সাইটে মূলত আপনার জন্য তৈরি করা হবে একটি ভার্চুয়াল ভিজিটিং কার্ড যাতে আপনি যোগ করতে পারবেন সোশ্যাল নেটওয়ার্কের লিংক, কর্মদক্ষতা, কাজের অভিজ্ঞতা এবং আপনার সাথে যোগাযোগের বিস্তারিত ঠিকানা। টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে এই সাইট স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার তথ্যগুলো হালনাগাদ করতেও সক্ষম। এটি আপনার জন্য মিনি সোশ্যাল নেটওয়ার্ক হিসেবেও কাজ করতে পারবে। ঠিকানা :follr.com

ডুয়িড ডটকম

ডুয়িড ডটকমের সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে আপনি যখন কোনো কাজ করবেন অনলাইনে, তা এই সাইটে লাইভ দেখানোর সুযোগ রয়েছে। আপনি যখন কোনো সার্ভিস যুক্ত করবেন, ট্যাগ বা লেআউট বদল করবেন, এটি সাথে সাথেই আপনাকে প্রিভিউ দেখাতে সমর্থ হবে। বিনামূল্যের এই সাইটে আপনি ১০টি পর্যন্ত লিংক যুক্ত করতে পারবেন অ্যাকাউন্টের সাথে। শুধু তাই নয়, এখান থেকে আপনি মোবাইলের জন্য আপনার পেজটির বিশেষ সংস্করণও তৈরি করে নিতে পারবেন। এখান থেকে ভিজিটররা ভার্চুয়াল বিজনেস কার্ড ডাউনলোড করতে পারবে। এখানে কনটাক্ট ফরমও যুক্ত করা যায়। ঠিকানা :dooid.me

উইবলি ডটকম

উইবলি ডটকম সাইটও আপনি ব্যবহার করতে পারবেন বিনামূল্যে। তবে এখান থেকে আপনার নিজস্ব ওয়েবপেজ তৈরি করতে গেলে প্রথমেই আপনাকে আপনার ওই পেজের ধরন বেছে নিতে হবে। এই পেজটিকে আপনি ফোরাম, ব্লগ, পোর্টফোলিও প্রভৃতি ফরম্যাটে তৈরি করার সুযোগ পাবেন। এখানে আপনি একটি সাবডোমেইনও তৈরি করতে পারবেন। টাকার বিনিময়ে অবশ্য নতুন ডোমেইন কিনতে পারবেন। পেজ তৈরি করতে গিয়ে থিম বাছাই করা এবং কনটেন্ট সাজানোর বিষয়গুলো আপনি নিজেই নির্ধারণের সুযোগ পাবেন। যারা ওয়েবপেজ বিষয়ে কিছুটা অভিজ্ঞ, তারা এখানে বিজ্ঞাপন যুক্ত করার ব্যবস্থাও করতে পারবেন। অ্যাডমিন অ্যাকসেস দিয়ে এটি সম্পাদনা করার সুযোগ অন্যকেউ দিতে পারবেন। ঠিকানা :weebly.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*