তাজা খবর
সীতাকুণ্ডে রাতের আঁধারে মসজিদের ফলক ভাঙচুর করলো মৌলবাদীরা

সীতাকুণ্ডে রাতের আঁধারে মসজিদের ফলক ভাঙচুর করলো মৌলবাদীরা

সীতাকুণ্ড উপজেলায় স্থানীয় সাংসদ দিদারুল আলমের উদ্বোধনের দু’দিন পর রাতের আঁধারে মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ফলক ভাঙচুর করেছে মৌলবাদীরা।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) রাতে ফকিরহাট এলাকায় সাদেক মস্তান (রাঃ) উচ্চ বিদ্যালয়ের বিপরীত পাশে মডেল মসজিদ ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ কাজের এই ফলক ভাঙচুর করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাতে মৌলবাদীরা মসজিদের নিরাপত্তা প্রহরীকে মারধরের পর উদ্বোধন ফলক ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে দুষ্কৃতিকারীরা পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার ঘণ্টা দু’য়েক পর ফের মৌলবাদীরা ঘটনাস্থলে এসে সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের নাম দেওয়া মসজিদের ফলক ভাঙচুর করেন।

জানা গেছে, রাজনৈতিকভাবে জনগণের কাছে আবেদন হারিয়েছে জামাত শিবিরের নেতাকর্মীরা। দেশের স্থিতিশীল অবস্থা নষ্ট করার ষড়যন্ত্র করছে এই স্বাধীনতাবিরোধী গোষ্ঠী। তারই অংশ হিসেবে মসজিদের ফলক ভেঙে তারা হিন্দু ধর্মের মানুষের ওপর দোষ চাপিয়ে এলাকায় অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করছে।

মসজিদের নাম ফলক ভাঙচুর করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সংসদ সদস্য দিদারুল আলম। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের প্রতিটি উপজেলায় কোটি টাকা ব্যয়ে মডেল মসজিদ নির্মাণ করে দিচ্ছেন।

‘প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন বাস্তবায়নে মঙ্গলবার ফকিরহাট এলাকায় একটি মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করি। কিন্তু একদল মৌলবাদী রাতের আঁধারে উদ্বোধন ফলক ভাঙচুর করে।’

হামলায় জড়িত মৌলবাদীদের দ্রুত চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে পুলিশের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা জানান, মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজে দুষ্কৃতিকারীরা ভাঙচুর চালাচ্ছে এমন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়।

‘পুলিশ দেখে দুষ্কৃতিকারীরা পলিয়ে যায়। তবে গভীর রাতে ফের এসে ফলক ভাঙচুর করে। তাদের ধরতে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*