তাজা খবর
ফাঁদে ফেলে জুয়াড়ীচক্রের এক প্রতারককে ধরল কতোয়ালী পুলিশ

ফাঁদে ফেলে জুয়াড়ীচক্রের এক প্রতারককে ধরল কতোয়ালী পুলিশ

চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে  ‘কিংস প্লেয়ার’ নামের তিন তাসের কার্ডের জুয়ার খেলার মাধ্যমে ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে আসা চক্রের একজন সদস্যকে ।

২ জুলাই বৃহস্পতিবার কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান,ওই চক্রের মাধ্যমে প্রতারণার শিকার হওয়া একজন ব্যক্তি গত ১৫ জুন থানায় অভিযোগ করেন। এরপর তদন্তে নেমে বুধবার বিকেলে কৌশলে নগরের কোতোয়ালী থানাধীন ইকবাল বোডিংয়ের সামনে থেকে মো. ফয়েজকে (৬০) গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত ফয়েজ নোয়াখালী জেলার মিয়াজান মিয়াজী সাহেবের বাড়ীর নূর মোহাম্মদের ছেলে। এ ঘটনায় মোস্তাক (৬৪), হাজী মনসুর (৬৫) ও ফরিদ (৫০) নামের তিন আসামি পলাতক আছেন।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তারকৃত ফয়েজ ও পলাতক আরো তিন আসামি একটি প্রতারক চক্র তৈরি করে কৌশলে বিভিন্ন লোকদের প্রলুব্ধ করে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করে আসছে। আসামিরা মূলত “কিংস প্লেয়ার” নামের তিন কার্ডের একটি জুয়া খেলার মাধ্যমে ভিকটিমকে ফাঁদে ফেলে। এ চক্রের মূল বসের ভূমিকায় থাকে চন্দনপুরার অধিবাসী মোস্তাফিজ, বোকার তথা দালালের ভূমিকা পালন করে হাজী মনসুর, অন্যান্যরা খেলোয়ারের ভূমিকায় থাকে।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, এই চক্রটি মামলার বাদীর কাছ থেকে ৬ হাজার টাকা নিয়ে ‘কিংস প্লেয়ার’ নামের তিন তাসের কার্ডের খেলাটি খেলার পর জানায়, তিনি ২৫ লাখ টাকা জিতেছেন। কিন্তু এই টাকাটা নিতে হলে ২৫ লাখ টাকা তাদের দেখাতে হবে। সেজন্য কমপক্ষে ১ লাখ টাকা যোগাড় করতে বলে এবং তারা বাকিটা যোগাড় করবে। এসময় বাদী আসামিদের ২৪ লাখ টাকা দেখাতে বললে তারা কৌশলে বিষয়টি এড়িয়ে যায়। তখনই বাদীর সন্দেহ হয়। এরপর ১ লাখ টাকা দেওয়ার কথা বলে আসামিদের ডেকে আনান ভুক্তভোগী। তখন একজনকে গ্রেপ্তার করি। বাকি তিন পলাতক আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*