কক্সবাজারচট্টগ্রামজাতীয়

কক্সবাজার এক্সপ্রেসের ৩দিনের টিকিট ১ঘণ্টায় শেষ

ঢাকা: ট্রেনে কক্সবাজার ভ্রমণের জন্যে অপেক্ষায় ছিলেন ভ্রমণপিপাসুরা। তাদের অপেক্ষা শেষ হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে বিক্রি শুরু হয়েছে ট্রেনের টিকিট। তবে বিক্রি শুরুর প্রথম ঘণ্টাতেই তিন দিনের টিকিট শেষ হয়ে গেছে।

সাধারণত যাত্রার নির্ধারিত দিনের ১০ দিন আগে থেকে অনলাইনে টিকিট বিক্রি শুরু হয়। তবে নতুন রুট ও আসন বিন্যাস নিয়ে জটিলতা থাকায় কক্সবাজার এক্সপ্রেসের টিকিট বিক্রি শুরু হয় আট দিন আগে।

আগামী ১, ২ ও ৩ ডিসেম্বরের টিকিট বিক্রি করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। কক্সবাজার এক্সপ্রেস ট্রেনটি ননস্টপ হওয়ায় সাধারণ আন্তঃনগর ট্রেনের চেয়ে ভাড়া বেশি ধরা হয়েছে।

শোভন চেয়ারের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৬৯৫ টাকা। এসি চেয়ারের ভাড়া ১ হাজার ৩২৫ টাকা, স্নিগ্ধা (এসি সিট) শ্রেণিতে ১ হাজার ৫৯০ টাকা এবং এসি বার্থের (ঘুমিয়ে যাওয়ার আসন) ভাড়া ২ হাজার ৩৮০ টাকা।সে হিসাবে সাধারণ আন্তঃনগর ট্রেনের চেয়ে শোভন চেয়ারে ১৯৫ টাকা, স্নিগ্ধা (এসি সিট) শ্রেণিতে ৪৪০ টাকা এবং এসি বার্থে ৬৫৫ টাকা বেশি গুনতে হচ্ছে যাত্রীদের।

অন্যদিকে যে যাত্রী চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত যাবেন তাদের শোভন চেয়ারের ভাড়া ২০৫ টাকা, স্নিগ্ধা শ্রেণির ৩৮৬ টাকা, এসি সিটের ৪৬৬ এবং এসি বার্থের ৬৯৬ টাকা।

কক্সবাজার এক্সপ্রেস ঢাকার কমলাপুর স্টেশন ছাড়বে রাত সাড়ে ১০টায়। চট্টগ্রামে পৌঁছাবে রাত ৩টা ৪০ মিনিটে। ২০ মিনিট যাত্রা বিরতি দিয়ে রাত ৪টায় কক্সবাজারের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। কক্সবাজারে পৌঁছাবে সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে। অর্থাৎ রাজধানী থেকে পর্যটন শহরে যেতে সময় লাগবে ৮ ঘণ্টা ১০ মিনিট।

আর কক্সবাজার থেকে ঢাকার উদ্দেশে ট্রেন ছাড়বে দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে। এ ট্রেন চট্টগ্রামে আসবে বেলা ৩টা ৪০ মিনিটে। আর ঢাকায় পৌঁছাবে রাত ৯টা ১০ মিনিটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *