খেলা

হ্যাটট্রিক করেও হেরে যাওয়ার আফসোস তৃষ্ণার

ইতিহাসেই জায়গা করে নিয়েছেন ফারিহা তৃষ্ণা। এখন অবধি মেয়েদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কেবল তিনজন বোলারই দুবার হ্যাটট্রিকের স্বাদ পেয়েছেন।

মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে হ্যাটট্রিক করে তাদের একজন হয়ে গেছেন তিনি।

এ ম্যাচের অজি মেয়েদের ইনিংসের শেষ ওভারের শেষ তিন বলে হ্যাটট্রিক করেন ফারিহা। এ বাঁহাতির প্রথম শিকার ছিলেন এলিসা পেরি, ঠিক তার পরের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে আউট হয়ে যান সোফি মলিনেক্স। হ্যাটট্রিক বলে বেথ মুনিকে বোল্ড করেছেন ফারিহা। নিজের ওই অভিজ্ঞতাই পরে শুনিয়েছেন তিনি।

ফারিহা বলেন, ‘লক্ষ্য ছিল একটু ভালো কিছু করার চেষ্টা করব। অনেকদিন পরে আবার টি-টোয়েন্টিতে ফিরলাম, ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়েছে, একটা ভালো পারফরম করার চেষ্টা করেছি, দলকে কিছু দেওয়ার চেষ্টা করেছি। ’

‘দ্বিতীয় হ্যাটট্রিকের সময় আমার মাথায় ছিল আমার জায়গায় করবো, যদি আল্লাহ তায়ালা সহায় হন, যদি কিছু হয়। ’

২০২২ সালের এশিয়া কাপে মালেশিয়ার বিপক্ষে আগের হ্যাটট্রিকটি করেছিলেন ফারিহা তৃষ্ণা। মেয়েদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একাধিক হ্যাটট্রিক করেছেন আর কেবল হংকংয়ের ক্যারি চ্যান ও উগান্ডার কন্সি এউকো। এমন কীর্তির পরও দল হেরে যাওয়ার আফসোস ফারিহার।

তিনি বলেন, ‘জি অবশ্যই আফসোস তো আছেই। নিজের অর্জন থেকে যদি দলের অর্জনটা হয় তখনই নিজের অর্জনের আনন্দটা বেশি হয়। দল জিতলে হয়তো এ অর্জনটা ভালোভাবে উদযাপন করা যেত। দল প্রথম। ’

‘আজকে আমাদের ভালো শুরু ছিল, আশাবাদী ছিলাম যে আজকের ম্যাচটা ভালোভাবে শেষ করতে পারব। কিন্তু আমরা চেষ্টা করেছি শেষ পর্যন্ত ভালোভাবে শেষ করার। ’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *